1. admin@handiyalnews24.com : admin :
  2. ivan.ivanovnewwww@gmail.com : leftkisslejour :
   
চাটমোহর,পাবনা রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ০২:৪৯ অপরাহ্ন

বাবরি মসজিদের জায়গায় রাম মন্দির উদ্বোধন করলেন মোদি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক
  • আপডেট সময় : সোমবার, ২২ জানুয়ারী, ২০২৪ , 10.21 pm
  • ২০ বার পড়া হয়েছে
ছবি : সংগৃহীত

অযোধ্যা শহরে হিন্দু জনতাদের ধ্বংস করে দেওয়া বাবরি মসজিদের জায়গায় হিন্দু দেবতা রামের নামে নির্মাণ করা হয়েছে রাম মন্দির।

সোমবার (২২ জানুয়ারি) মন্দিরটি উদ্বোধন করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

 

মন্দিরের উদ্বোধন উপলক্ষে চলচ্চিত্র তারকা, শিল্পপতি, ক্রিকেটারসহ কয়েক হাজার আমন্ত্রিত অতিথি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেন। ভারত ও বিদেশ থেকে হাজার হাজার আমন্ত্রিত অতিথি উপস্থিত ছিলেন। তবে কিছু হিন্দু সাধক এবং বেশির ভাগ বিরোধী এ মন্দিরের উদ্বোধনের বিরোধিতা করে বলছেন, মোদি রাজনৈতিক সুবিধা আদায়ের জন্য এটি ব্যবহার করছেন।

 

মোদির রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীরা বলছেন, আগামী কয়েক মাসের মধ্যে ভারতে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। তাই ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) এমন একটি দেশে এই মন্দিরের নামে ভোট চাইবে, যেখানে মোট জনসংখ্যার ৮০ শতাংশ হিন্দু।

 

অনেক হিন্দু বিশ্বাস করেন, অযোধ্যা হলো রামের জন্মস্থান। এ দেবতার জন্মস্থানে একটি রাম মন্দিরের ধ্বংসাবশেষের ওপর মুসলিম আক্রমণকারীরা তৈরি করেছিল। একই স্থানে একটি মন্দির নির্মাণের আন্দোলনের মধ্য দিয়েই বিজেপি ১৯৯০-এর দশকে রাজনৈতিকভাবে ভারতে গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছিল।

 

১৯৯২ সালে বাবরি মসজিদ ধ্বংসের পরে ভূমির মালিকানা নিয়ে দীর্ঘ আইনি লড়াই চলেছে। অবশেষে ২০১৯ সালে দেশটির সুপ্রিম কোর্ট বিতর্কিত ওই জমির মালিকানা হিন্দুদের প্রদান করেন এবং মসজিদ নির্মাণের জন্য মুসলিমদেরকে শহরের বাইরে একটি জমি দেওয়া হয় ।

 

২১৭ মিলিয়ন ডলার ব্যয়ে নির্মিত নতুন তিনতলা রাম মন্দিরটি গোলাপি বেলেপাথর এবং কালো গ্রানাইট পাথর দিয়ে তৈরি। এটি ৭০ একর কমপ্লেক্সের ৭ দশমিক ২ একর জায়গা নিয়ে বিস্তৃত। মন্দিরের শুধু নিচতলা উদ্বোধন করবেন মোদি। বাকি অংশগুলো নির্মাণের কাজ বছরের শেষ নাগাদ সমাপ্ত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

 

বড় জনসমাগম এড়াতে তীর্থযাত্রীদের অযোধ্যায় বেশি সংখ্যায় না এসে টেলিভিশনে অনুষ্ঠানটি সরাসরি দেখার জন্য আহ্বান করেছেন মোদি। এর জন্য বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলোর স্কুল এবং কলেজগুলো বন্ধ ঘোষণা করার পাশাপাশি এবং পূর্ণ বা অর্ধ দিনের সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

 

মোদি মানুষকে প্রদীপ জ্বালাতে বলেছেন এবং বিজেপির সমর্থকরা দিল্লির বেশ কয়েকটি এলাকাসহ দেশের অনেক জায়গায় বাড়ির ছাদে রামের ছবিসহ জাফরান রঙের পতাকা টাঙিয়েছে।

 

উল্লেখ্য, ১৯৯২ সালে হিন্দু জনতা ধ্বংস করে দেয় ১৬ শতকের বাবরি মসজিদ। মসজিদ ধ্বংসের ফলে দেশব্যাপী দাঙ্গা শুরু হয়। সেই দাঙ্গায় প্রাণ হারান প্রায় ২ হাজার মানুষ। সেই মসজিদের জায়গায় নির্মাণ হলো রাম মন্দির।

এই সংবাদটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো সংবাদ
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি। সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২২-২০২৪ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের তথ্য মন্ত্রনালয়ের বিধি মোতাবেক নিবন্ধনের জন্য আবেদিত।
error: Content is protected !!